না, এই চাওয়ালা উত্তরপ্রদেশ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ভাই নন

যোগী আদিত্যনাথের ভাই বলে এক চা বিক্রেতার ছবি ভাইরাল হয়েছে, এটি সর্বৈব মিথ্যা

 |  2-minute read |   11-02-2019
  • Total Shares

সোশ্যাল মিডিয়ায় একজন চা-ওয়ালার ছবি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। দাবি করা হচ্ছে, এই চাওয়ালা নাকি উত্তরপ্রদেশ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ভাই।

body_021119051142.jpg

এই পোস্টটির একটি আর্কাইভ ভার্শন এখানে দেখা হচ্ছে।

অন্য অনেকের সঙ্গে বিধায়ক নিলম চতুর্বেদী তাঁর ফেসবুকের ওয়ালে ছবিটি পোস্ট করে হিন্দিতে ক্যাপশন লিখেছেন: "উত্তরপ্রদেশ কা মুখ্যমন্ত্রী আদরণীয় যোগীজি কে ভাই হ্যায় যো চায়ে কি দুকান চালা রাহে হ্যায়। কংগ্রেস কে কোই ভি বড়ে নেতা ক্যা ভাই ইস তরাহ্ কা হো তো জরুর পোস্ট কিজিয়েগা।"

বঙ্গানুবাদ: উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সকলের প্রিয় যোগী আদিত্যনাথের ভাই চায়ের দোকান চালাচ্ছেন। কংগ্রেসেরও কোনও বড় নেতার ভাইয়ের এমন ছবি পেলে অবশ্যই পোস্ট করবেন।

ইন্ডিয়া টুডের ফ্যাক্ট চেক এই বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধান করে দেখেছে যে ওই ভাইরাল হওয়ার ছবির ব্যক্তিটি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ভাই নন। এই প্রতিবেদনটি লেখার সময়ে প্রায় ১১,০০০ লোক এই ছবিটিকে শেয়ার করে ফেলেছেন।

ছবির লোকটিকে সনাক্ত করার জন্য ইন্ডিয়া টুডে যোগীর বোন শশী সিংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। শশীর স্বামী পূরণ পায়েল আমাদের জানিয়েছেন যে ছবির লোকটি যোগীর ভাই নন। এমনকি তিনি তাঁদের পরিবারের কোনও সদস্যও নন। তিনি জানিয়েছেন যে যোগীর কোনও ভাইয়েরই চায়ের দোকান নেই। যোগীর তিন ভাই ও তিন বোন আছেন।

যোগীর পরিবার নিয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে এবিপি নিউজ চ্যানেল সম্প্রচারিত মার্চ, ২০১৭ সালের একটি সাক্ষাৎকারও আমরা দেখেছি। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরে এই সাক্ষাৎকারটি দিয়েছিলেন যোগী। এই অনুষ্ঠানে যোগীর দুই ভাইকে দেখা গিয়েছিল। যোগীর আরেক ভাই ভারতীয় সেনাবাহিনীতে চাকরি করেন।

ইন্ডিয়া টুডে-সহ বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমই শৈলেন্দ্র মোহনকে নিয়ে খবর করেছেন। আজ একটা বিষয়ে তাই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে - ছবিতে দেখতে পাওয়া লোকটি কোনও ভাবেই যোগীর ভাই নন।

ছবির লোকটির পরিচয় অবশ্য আমরা জানতে পারিনি। কিন্তু তিনি যে যোগীর ভাই যে নন তা প্রমাণিত। তবে তাঁর মুখের সঙ্গে আদিত্যনাথের অভাবনীয় মিল রয়েছে।

body1_021119051123.jpg

দাবি: ভাইরাল হওয়া ছবির চা-বিক্রেতা নাকি যোগী আদিত্যনাথের ভাই

বাস্তব: না, এই চা বিক্রেতা উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর ভাই নন

(সহায়তায়: দেরাদুন থেকে দিলীপ সিং রাঠোর)

লেখাটি পড়ুন ইংরেজিতে

Comment